ভারতে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতির কারণে মাঝপথে স্থগিত করা হয়েছে এবারের আইপিএল। কবে নাগাদ বাকি অংশ শুরু হবে, তা অনিশ্চিত।তবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী জানিয়ে দিলেন, অন্তত ভারতে যে বাকি অংশ হচ্ছে না, তা মোটামুটি নিশ্চিত।

রোববার এক সাক্ষাৎকারে সৌরভ আইপিএলের বাকি অংশ ভারত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন। তার মতে, ঠাসা সূচির কারণেই আইপিএলের জন্য জায়গা বের করা সম্ভব নয়। একইসঙ্গে ইংল্যান্ডে বাকি অংশ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই বলেও জানিয়ে দেন তিনি।

সাক্ষাৎকারে সৌরভ বলেন, ‘সে (ভারতে আইপিএল হওয়া) সম্ভাবনা নেই। ইংল্যান্ডের পরে শ্রীলঙ্কায় তিনটি ওয়ানডে এবং পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলতে যাবে ভারত। সব জায়গায় ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের মতো কঠোর নিয়ম রয়েছে। ফলে আইপিএল ভারতে হওয়ার সুযোগ নেই। বাকি অংশ আয়োজন করার সম্ভাবনার কথা এখনই বলা মুশকিল। ‘

মহামারির মধ্যে আইপিএল চালু রাখার কারণে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছিল বিসিসিআই। সেই সমালোচলার জবাবে সৌরভ বলেন, ‘যদি কেউ আক্রান্ত না হত তা হলে আমরা প্রতিযোগিতা চালিয়ে যেতাম। ক্রিকেটাররা জৈব সুরক্ষা বলয়ে ছিল এবং মাঠে কোনো দর্শক ঢুকতে দেওয়া হচ্ছিল না। কোনো ক্রিকেটারও আক্রান্ত হয়নি। তারা আক্রান্ত হতেই আমরা বন্ধ করে দিচ্ছিলাম। বাকি লিগগুলোতে প্রচুর করোনা আক্রান্ত পাওয়া যাচ্ছে। সেসব লিগ কিন্তু থামেনি। ‘

বিসিসিআই প্রধান আরও বলেন, ‘অনেকের মনে হতে পারে আইপিএল হয়তো আরও আগে শেষ হলেই ভালো হত। কিন্তু মুম্বাই এবং চেন্নাইয়ে কেউ আক্রান্ত হয়নি। দিল্লি এবং আহমেদাবাদের পরেই এই ঘটনা ঘটেছে। কিছু লোক সমালোচনা করবেই। কিন্তু ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও অনেকে আক্রান্ত হচ্ছে। তারা ম্যাচ পিছিয়ে দিচ্ছে। আইপিএলে এমনটা অসম্ভব। সাত দিন খেলা থামিয়ে দিলেই ক্রিকেটাররা বাড়ি ফিরে যাবে। এরপর আবার সেই কোয়ারেন্টিন…।