ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে, তারা ফাইজার ভ্যাকসিন বিনিময়ের বিষয়ে ইসরায়েলের সঙ্গে যে চুক্তি করেছিল, তা বাতিল করা হয়েছে।  

কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, ইসরায়েল যে ভ্যাকসিন দেবে সেগুলোর মেয়াদ শিগগিরই শেষ হয়ে যাবে।এতো দ্রুত ভ্যাকসিন কার্যক্রম পরিচালনার সক্ষমতা ফিলিস্তিনের নেই।

ইসরাইল জানিয়েছিল, তারা ভ্যাকসিন মজুদ করতে চায় না। তাদের কাছে থাকা ভ্যাকসিন তারা ফিলিস্তিনকে দিতে চায়। এটি ফিলিস্তিনের ভ্যাকসিন কার্যক্রমকে ত্বরান্বিত করবে। বিনিময়ে ফিলিস্তিন যখন এ বছরের শেষ দিকে ফাইজারের ভ্যাকসিন পাবে তখন সমান সংখ্যক ভ্যাকসিন ইসরাইলকে ফেরত দেবে।

চুক্তি বাতিল নিয়ে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আলকাইলা বলেন, ইসরাইল জানিয়েছিল এই ভ্যাকসিনের মেয়াদ আছে অন্তত জুলাই মাস পর্যন্ত। তবে যখন ভ্যাকসিন পৌঁছাল তখন দেখা গেলো জুন মাসেই এর মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। কিন্তু এতো কম সময়ে এতো ভ্যাকসিন প্রদানের সক্ষমতা আমাদের নেই। তাই আমরা এই চুক্তি প্রত্যাখ্যান করেছি। এ নিয়ে ইসরায়েল এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

এর আগে চুক্তি ঘোষণার পর ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন।