গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৯৯৫ জনের।একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ২৯৮ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ১৩৫ জনে।

বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আট হাজার ৭২ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৭ লাখ ৭৯ হাজার ৬৮৭ জন।

সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৭৫টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২৩ হাজার ৯২টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৩ হাজার ২৭৪টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ৩২ লাখ ৮৩ হাজার ৭৮৫টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার পাঁচ দশমিক ৫৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৫৯ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ৮২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘন্টায় মৃত পাঁচজনের মধ্যে চারজন পুরুষ এবং একজন নারী। এদের ভেতর ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুইজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে দুইজন রয়েছেন। তারা সবাই ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন। এর মধ্যে চারজন সরকারি হাসপাতালে এবং একজন বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ২৭০ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন এক হাজার ৫৪১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন চার লাখ ৪০ হাজার ৮০৫ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ৯২ হাজার ৪০৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৪৮ হাজার ৩৯৮ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।