খুলনা মহানগর ও জেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে জেলা যুবলীগের সভাপতি পদে চৌধুরী মো. রায়হান ফরিদ এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ইঞ্জি. মো. মাহফুজুর রহমান সোহাগকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে কেন্দ্রীয় যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলের স্বাক্ষরিত পৃথক বিবৃতিতে তাদের নাম ঘোষণা করা হয়।

এর আগে খুলনা মহানগরের সভাপতি পদে সফিকুর রহমান পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক পদে শেখ শাহজালাল হোসেন সুজনকে নির্বাচিত করা হয়।

আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে খুলনা মহানগরে ১৩১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি এবং জেলায় ১০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে কেন্দ্রের অনুমোদনের জন্য জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটি।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, জেলা ও মহানগর যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নির্বাচিত করা হয়।

প্রথম অধিবেশনে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস (পরশ)। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন। প্রধান বক্তা যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খান (নিখিল)। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয় ইউনাইটেড ক্লাবে। সেখানে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ২০০৩ সালের ৬ মে খুলনা মহানগর ও জেলা যুবলীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই সম্মেলনে মহানগরের সভাপতি করা হয় আনিসুর রহমানকে এবং সাধারণ সম্পাদক হন আলী আকবর। জেলা যুবলীগের সভাপতি হন মো. কামরুজ্জামান জামাল আর সাধারণ সম্পাদক হন মো. আক্তারুজ্জামান।