জেমি ডে ৩২ ফুটবলার নিয়ে মাঠে নেমেছেন সোমবার থেকে। লক্ষ্য জুনে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের বাকি ৩ ম্যাচ। কোচের দাবি, তিনি দেশের সেরা ফুটবলারদেরই ডেকেছেন ক্যাম্পে। এ নিয়ে অবশ্য সবসময়ই বিতর্ক থাকে। ওকে কেন নিলেন, ওকে কেন নিলেন না- এ অভিযোগ সব সময়েরই। বিশেষ করে ক্লাবগুলোর পক্ষ থেকে অভিযোগুলো বেশি আসে।

আসলেই কী জেমি সেরাদের ডাকেন? নাকি কারো কারো ইন্দনে পক্ষপাতিত্ব হয়। জেমি যাদের ডাকেন তাদের বাইরে কী ডাক পাওয়ার মতো ফুটবলার থাকেন? এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এই প্রথম ক্লাবগুলোর বক্তব্য শুনছেন বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। তিনি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ ক্লাবগুলোর কোচ ও ম্যানেজারের সঙ্গে বিশেষ সভা করছেন।

প্রথমদিন মঙ্গলবার কাজী মো. সালাউদ্দিনের সভা করেছেন বসুন্ধরা কিংস, আবাহনী ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের কোচ ও ম্যানেজারের সঙ্গে। দুপুরের পরই সভাটি অনুষ্ঠিত হয় বাফুফে ভবনে। বুধবার মোহামেডান, শেখ জামাল ও সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের কোচ ম্যানেজারের সঙ্গে সভা করার কথা রয়েছে বাফুফে সভাপতির।

কাতার সফরের জন্য ক্যাম্পের খেলোয়াড় তালিকা ও নেপাল সফরের সময় জেমির যে তালিকা ছিল তা ক্লাবের কোচ-ম্যানেজারের হাতে ধরিয়ে বাফুফে সভাপতির জানতে চাইবেন এর বাইরে কোনো খেলোয়াড় আছেন কিনা যাদের ডাকা উচিত ছিল। কারণ, খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স কাছ থেকে দেখেন ক্লাবের কোচরা।

জাতীয় দলকে আরো শক্তিশালী, আরো গ্রহণযোগ্য ও বিতর্কমূক্ত রাখতেই বাফুফে সভাপতি এ উদ্যোগ নিয়েছেন।