শীতের সকালে মোটরসাইকেল স্টার্ট নিতে চায় না। অনেক কাঠ-খড় পুড়িয়ে বাইক স্টার্ট করতে হয়। কেননা, দীর্ঘক্ষণ ইঞ্জিন বন্ধ থাকায় ঠান্ডা হয়ে যায়। ফলে স্টার্ট নিতে সমস্যা হয়।

যেসব বাইকে কিক স্টার্টার আছে, যেসব বাইকে একের পর এক কিক মেরে স্টার্ট করতে হয়। কিন্তু যেসব বাইকে কিক নেই, শুধু সেলফ স্টার্টার-তাদের ঘাম ঝরাতে হয়। জানুন শীতের সকালে বাইক স্টার্ট করে ইঞ্জিন গরম করার উপায়।চোক টেনে স্টার্ট দিন

শীতের সকালে বাইক স্টার্ট না নিলে চোক টেনে ধরে স্টার্ট দিন। চোখ টেনে ধরার পর বাইক স্টার্ট নিলে চোখ ছেড়ে দিন। না হলে অত্যাধিক তেল খরচ হবে।

কার্বুরেটর যুক্ত বাইকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে চোক। কার্বুরেটর ইঞ্জিনে বায়ু-জ্বালানির মিশ্রণ তৈরি হওয়া ও তা ইঞ্জিনে প্রবেশ করানো হয় যান্ত্রিকভাবে বা বলা যেতে পারে ম্যানুয়ালি। আর এ ধরনের যান্ত্রিক প্রযুক্তির মোটরসাইকেলে কার্বুরেটর চোক আবশ্যিক একটি অংশ। চোক সেখানে পরিবেশ ও তাপমাত্রা জনিত সমস্যায় ইঞ্জিনে প্রয়োজনীয় বায়ু-জ্বালানি মিশ্রণ তৈরি করতে কাজ করে।

স্টার্ট দিয়ে চালিয়ে রাখুন

শীতের সময় একটু বেশি ইঞ্জিনের যত্ন নিতে হবে। দিনের শুরুতে বাইক স্টার্ট দিয়েই চালাতে শুরু করবে না। ২-৩ মিনিট আইডল অবস্থায় রাখুন। এতে ইঞ্জিন গরমে হবে। ইঞ্জিন ওয়েল ছড়িয়ে পড়বে ইঞ্জিনের সব কোণায়।

ব্যাটারি চেক আপ করুন

নিয়মিত ব্যাটারি চেক আপ করুন, যাদের বাইকে কিক অপশন নেই তাদের জন্য ব্যাটারি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। শীতে বাইকের ব্যাটারির দিকে একটু বাড়তি নজর দিতেই হবে আপনাকে। অতিরিক্ত গরম বাইকের মধ্যে থাকা ব্যাটারির জন্য যথেষ্ট ক্ষতিকর। যদিও নতুন ব্যাটারি সাধারণত শীতকালে সমস্যার সম্মুখীন হয় না। তাও অতিরিক্ত ঠান্ডাতে দেখা যেতে পারে বেশ কিছু সমস্যা। যদি আপনার বাইকের ব্যাটারি ৪ থেকে ৫ বছরের বেশি পুরনো হয় কিংবা তাতে অল্প চার্জ থাকে তবে দীর্ঘক্ষণ অতিরিক্ত ঠান্ডার সংস্পর্শে থাকার ফলে সেই ব্যাটারি সম্পূর্ণ ‘ডেড’ হয়ে যেতে পারে। তাই ব্যাটারির ক্ষমতা পরীক্ষা করে নিন যাতে আপনি কোনও রকম সমস্যার সম্মুখীন না হন।

বাইক ঢেকে রাখুন

শীত কালে প্রচুর পরিমাণে কুয়াশা পড়ে যা বাইকের জন্য ক্ষতিকর খুবই, বাইক সরাসরি খোলা আকাশে নিচে রাখবেন না। এতে করে কুয়াশায় বাইক সম্পূর্ণ ভিজে যায়। এর ফলে ব্যাটারির ওপর প্রভাব পরে। তাই চেষ্টা করবেন বাইক ফাঁকা জায়গায় না রাখার যদি একান্তই রাখতে হয় তাহলে অবশ্যই ঢেকে রাখবেন।

প্লাগ পরিষ্কার রাখুন

বাইকের প্লাগটি সব সময় পরিষ্কার রাখতে চেষ্টা করুন। শীতের শুরুতেই ফিল্টার পরিবর্তন করে নেওয়াই ভাল। তবে সম্ভব না হলে যে কোনও সময় বদলে নিন। সেই সঙ্গে ইঞ্জিনে ভালো মানের ওয়েল ব্যবহার করুন।