হোঁচট খেয়ে সিঁড়ি থেকে গড়িয়ে পড়লেন ভ্লাদিমির পুতিন। তবে নিরাপত্তরক্ষীরা কাছে থাকায় তাকে দ্রুত ধরে ফেলেন এবং পাশে থাকা একটি সিঁড়িতে বসান। এর আগে কয়েকটি সিঁড়ি গড়িয়ে পড়েন রুশ প্রেসিডেন্ট।

টেলিগ্রাম ভিডিওর বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক পোস্ট, ডেইলি মেইল ও নিউজ ডটকমের খবরে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।


সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, ঘটনাটি পুতিনের দেহরক্ষীদের সামনেই ঘটেছে। তিনজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা পুতিনকে ধরে কাছেই একটি সোফায় বসিয়ে দেন এবং ডাক্তার ডাকেন। ঘটনাটি পুতিনের নিজস্ব বাসভবনে ঘটেছে।

রুশ টেলিগ্রাম চ্যানেল জেনারেল এসভিআরের খবরে দাবি করা হয়েছে, কিছু শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন পুতিন। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই চিকিৎসকরা পুতিনের সেবায় নিয়োজিত হন।

দাবি করা হয়েছে, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টিনালের ক্যান্সারে ভুগছেন পুতিন। হজম প্রক্রিয়া নিয়ে গুরুতর অসুস্থতাও রয়েছে তার।

জানা গেছে, চিকিৎসা শুরুর আগে তাকে বাথরুমে নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবারের এই ঘটনার পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট তরুণ বিজ্ঞানীদের একটি কনফারেন্সে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দেন।

সেখানে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ন্যাশনাল ইউনিটি ডের কর্মসূচিতে বেশ অসুস্থ দেখাচ্ছিল পুতিনকে। এতে বলা হয়, ভ্লাদিমির পুতিন উচ্চমাত্রায় স্টেরয়েড ও পেইন কিলিং ইনজেকশন নেওয়ার কারণে তার মুখমণ্ডল বেশ কিছুদিন ধরেই ফোলা ফোলা দেখা যাচ্ছে।

সম্প্রতি পশ্চিমা সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করেছিল যে, পুতিন ভয়ানক অসুস্থায় ভুগছেন। একাধিক ভিডিও প্রকাশ করে তার শারীরিক অবস্থার বিশ্লেষণ করা হয়।