নতুন সুরক্ষা ফিচার নিয়ে এসেছে ইনস্টাগ্রাম। ওই ফিচারটি আক্রমণাত্মক শব্দ থাকতে পারে এমন বার্তা ব্যবহারকারীদের দেখতে দেবে না। সব ধরনের আক্রমণাত্মক শব্দ, বাক্যাংশ বাদ দিয়ে দেবে এটি।

ইনস্টাগ্রাম বুধবার জানিয়েছে, নতুন ফিচার বাদেও, ব্লকড অ্যাকাউন্টের কোনো ব্যক্তি যাতে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলে ব্যবহারকারীদের হয়রানি না করতে পারে, সে ব্যবস্থাও করবে তারা। গোটা ব্যাপারটিই আরও কঠিন হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

রয়টার্স উল্লেখ করেছে, ইনস্টাগ্রাম অনেকদিন ধরেই নিজ প্ল্যাটফর্ম থেকে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য ও অনলাইন হয়রানি নির্মূলের চেষ্টা করে আসছে। বর্তমানে কিশোর বয়সী এবং অল্প বয়সীদের মধ্যে ফেইসবুকের মূল অ্যাপের চেয়েও ইনস্টাগ্রাম জনপ্রিয়।

নতুন ফিচারটির দেখা মিলবে ইনস্টাগ্রামের প্রাইভেসি বা গোপনতা সেটিংসে। ব্যবহারকারীরা যে শব্দ, বাক্যাংশ বা ইমোজি দেখতে চান না তা আগে থেকেই নিষিদ্ধ করে রাখতে পারবেন। তাদের মেসেজ রিকোয়েস্টে পরবর্তীতে এরকম কোনো শব্দের মেসেজ এলে তা আটকে যাবে ফিচারের জালে।

ব্যবহারকারীরা নিজেদের পরিচয় গোপন রেখে এ ধরনের মেসেজের ব্যাপারে রিপোর্ট করতে পারবেন, এ ধরনের মেসেজ মুছতে বা খুলতে পারবেন।

ফিচারটি শুধু মেসেজ রিকোয়েস্টের জন্য কাজ করবে, ইনবক্সের বেলায় কাজ করবে না। ইনস্টাগ্রাম জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহগুলোতে কিছু কিছু দেশে এসে হাজির হবে এটি।