ঠিকভাবে ঘুম না হলে তার প্রভাব পড়ে প্রায় সবকিছুতেই। দুই-এক রাতে ঘুম না হলে ভিন্ন কথা কিন্তু রাতের পর রাত জেগে থাকতে হলে শরীর দ্রুত অসুস্থ হয়ে পড়বে। অনিদ্রা বা ঘুম না আসার সমস্যাকে প্রথমেই গুরুত্বের সঙ্গে নিতে হবে। নয়তো ধীরে ধীরে এটি বাড়তেই থাকবে। সমস্যা জটিল মনে হলে দ্রুত বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে। তবে অনিদ্রা দূর করার জন্য মেনে চলতে পারেন এই ঘরোয়া উপায়গুলো-

গ্যাজেট ব্যবহার করবেন না

রাতে ঘুম না এলে অনেকেই স্মার্টফোন, ট্যাব বা ল্যাপটপে মুখ গুঁজে বসে থাকেন। আপনারও যদি এমন অভ্যাস থাকে তবে তা বাদ দিন। কারণ এতে ঘুম তো আসবেই না, উল্টো সমস্যা আরও বাড়বে। এর বদলে বই পড়ুন। নয়তো মৃদু শব্দে গান শুনতে পারেন। গ্যাজেট থেকে বিচ্ছুরিত আলো আপনার ঘুম নষ্ট করতে পারে। তাই ঘুমের অন্তত দুই ঘণ্টা আগে গ্যাজেট সরিয়ে রাখুন।

নির্দিষ্ট রুটিন

সবকিছুরই রুটিন থাকা জরুরি। নিয়মমাফিক চললে যেকোনো সমস্যার সমাধান সহজ হয়। তাই ঘুমের জন্য নির্দিষ্ট রুটিন তৈরি করুন। সেভাবেই মেনে চলার চেষ্টা করুন। রাতে দ্রুত ঘুমাতে যান এবং ভোরে ঘুম থেকে উঠুন। এতে ঘুমের সমস্যা অনেকটাই কমে আসবে। এভাবে কয়েকদিনেই আপনি অভ্যাস করে নিতে পারবেন।

আগেভাগে রাতের খাবার

বর্তমানে বেশিরভাগই রাতের খাবার দেরিতে খান। এতে হজমশক্তি তো খারাপ হয়ই, সেইসঙ্গে ঘুমেরও বাজে বারোটা! সবচেয়ে ভালো হয় ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার খেলে। রাতের খাবার হালকা হওয়াই উত্তম। রাত আটটার মধ্যে খাওয়ার পর্ব সেরে নেবেন। গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থাকলে খেতে হবে আরও বুঝেশুনে।

হালকা গরম পানিতে গোসল

রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে হালকা গরম পানিতে গোসল করে নিতে পারেন। এতে ঘুম ভালো হবে। ল্যাভেন্ডার বডি ওয়াশ বা পারফিউম ব্যবহার করতে পারেন। এই সুবাস আপনার ঘুমকে গাঢ় ও প্রশান্তিদায়ক করতে পারে।