জাঙ্কফুড, অনিরাপদ খোলা খাবার ও পথ খাবার পরিহারে দেশব্যাপী সচেতনতামূলক প্রচারণার অংশ হিসেবে এক অ্যাডভোকেসি সভা আজ (মঙ্গলবার) বিকালে খুলনা নগরীর শামসুর রহমান রোডস্থ স্কুল হেলথ ক্লিনিক সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

    সভাপতির বক্তৃতায় সিভিল সার্জন বলেন, জাঙ্কফুড খেতে সুস্বাদু কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য ভাল নয়। জাঙ্কফুডের অতিরিক্ত লবণ, চিনি, ফ্যাট ও রাসায়নিক দ্রব্য মানুষের দেহে জীবনহানিকর রোগ সৃষ্টি করতে পারে। অনুরূপভাবে অনিরাপদ পরিবেশে তৈরি হওয়া পথ খাবারও আমাদের জন্য বিপদ বয়ে আনতে পারে। তাই ঘরে তৈরি স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণের অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

    সভায় জানানো হয়, ২০১৫ সালে প্রকাশিত আইসিডিডিআরবি এর সমীক্ষায় দেখা গেছে  বাংলাদেশে  ৫০ শতাংশ পথ খাবার ডায়রিয়া জনিত ব্যাকটেরিয়া দ্বারা দূষিত। ৫৮ শতাংশ বিক্রেতা বিক্রি করার সময় খাবার ঢেকে রাখেন না। দেশে প্রায় তিন কোটি মানুষ প্রতি বছর খাদ্যজনিত অসুস্থতায় ভোগে।

    স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য শিক্ষা ব্যুরোর লাইফস্টাইল হেলথ এডুকেশন এন্ড প্রমোশন আয়োজিত এ অ্যাডভোকেসি সভায় সিভিল সার্জন দপ্তরের মেডিকেল অফিসার ডাঃ সাবরিনা রহমান, খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের সহকারী তথ্য অফিসার মোঃ আতিকুর রহমান মুফতি, সিভিল সার্জন দপ্তরের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

    সভায় সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের প্রতিনিধি ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।