ভারত যেন করোনা সংক্রমণের রেকর্ড ভাঙায় উন্মাদ হয়ে গেছে। গত কয়েকদিনের অবস্থা থেকে তেমনটাই মনে হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও ভারতে সংক্রমণের রেকর্ড হয়েছে। তবে আশার কথা হচ্ছে আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কিছুটা কমেছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৮৬ হাজার। এই সময়ের মধ্যে মারা গেছে ৩ হাজার ৪৯৮ জন।

একদিন আগেই আক্রান্তের সংখ্যা ছিল তিন লাখ ৭৯ হাজারের বেশি এবং মারা গেছে তিন হাজার ৬৪৫ জন। অর্থাৎ একদিনের ব্যবধানের মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমলেও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে।

এখন পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে মোট ২ লাখ ৮ হাজার ৩৩০ জন। এ নিয়ে টানা ৯ দিন ধরে ভারতে নতুন সংক্রমণ তিন লাখের বেশি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমণ ১ কোটি ৮৭ লাখের বেশি।

করোনা সংক্রমণে এখন পর্যন্ত শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। এই তালিকায় ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। দেশটিতে সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র, কেরালা, কর্ণাটক, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু এবং দিল্লি। মোট সংক্রমণের বেশিরভাগই এসব রাজ্যে।

মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬ হাজার ১৫৯ এবং মারা গেছে ৭৭১ জন। অপরদিকে কেরালায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৩৮ হাজার ৬০৭ জন। এখন পর্যন্ত ওই রাজ্যে এটাই একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনারায়ি বিজয়ন জানিয়েছেন, আগামী ৪ মে থেকে ৯ মে পর্যন্ত আরও কড়াকড়ি আরোপ করা হবে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় কর্ণাটকে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ হাজার ২৪ এবং একই সময়ে মারা গেছে ২৭০ জন। দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে। করোনা সংক্রমণে রাজধানী দিল্লির অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ। গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে নতুন সংক্রমণ ঘটেছে ২৪ হাজার ২৩৫। অপরদিকে একই সময়ে মারা গেছে ৩৯৫ জন।