ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে যুদ্ধবিরতিতে মধ্যস্থতা করার জন্য মিসরকে ধন্যবাদ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার টেলিফোনে মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসির সঙ্গে আলাপকালে তাকে ধন্যবাদ জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এসময় টানা ১১ দিনের যুদ্ধে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হওয়া গাজার পাশে দাঁড়াতে বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানান দুই নেতা। একই সঙ্গে সেখানে আরও বেশি সহযোগিতা পাঠানোর বিষয়েও কথা বলেন তারা। তবে এ সাহায্য যেন গাজার কোন রাজনৈক দলের কাছে না গিয়ে সেখানকার সাধারণ মানুষের নিকট পৌছায় সে বিষয়েও সতর্ক করেছেন তারা।

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন ইস্যুতে নিজের দল ডেমোক্রেট পার্টির সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে বাইডেনকে। এছাড়া বিশ্বব্যাপিও নানাভাবে সমালোচনার শিকার হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বাইডেন প্রশাসন।

মিসরের মধ্যস্থতায় গত শুক্রবার ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে যুদ্ধবিরতি হয়। এছাড়া গত সপ্তাহে যুদ্ধক্ষেত্র গাজার সংস্কারে ৫শ মিলিয়ন ডলার সহযোগিতার ঘোষণা দিয়েছেন আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি।

যুদ্ধ চলাকালিন ১১ দিনে ইসরায়েলি হামলায় ২৫০ ফিলিস্তিনির মুত্যু হয়। আহত হয়েছে অন্তত ২ হাজার মানুষ। এছাড়া ধ্বংস হয়েছে গাজার বহু স্থাপনা।

অপরদিকে ইসরায়েলি আগ্রাসনের জবাবে ৪ হাজারের বেশি রকেট নিক্ষেপ করে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠনগুলো। এতে বিদেশিসহ অন্তত ১২ জন নিহত হয়। শেষ পর্যন্ত ফিলিস্তিনিদের প্রতিরোধের মধ্যে গত ২১ মে মিসরের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতি মেনে নেয় দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী।

পবিত্র রমজান মাসের শেষের দিকে ইসরায়েলি বাহিনী আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালায় এবং জেরুজালেমের শেখ জাররাহ এলাকা থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের চেষ্টা চালায়। সেখানে পরিস্থিতির অবনতি হলে ইসরায়েলকে চূড়ান্ত সময়সীমা সময় বেঁধে দেয় হামাস এবং পরবর্তীতে দখলদারদের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।