ভারী বর্ষণের কারণে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে হঠাৎ বন্যার আভাস দেখা দিয়েছে।
 
পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র সোমবার (১৪ জুন) এ তথ্য জানায়।

পাউবো বলছে, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীর পানির সমতল বাড়ছে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) পর্যন্ত এটা অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা নদীর পানির সমতলও বাড়ছে। অপরদিকে পদ্মানদীর পানির সমতল স্থিতিশীল আছে, যা মঙ্গলবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীর পানির সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা বুধবার বাড়তে পারে।

পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানান, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তরের গাণিতিক মডেলের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল, পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় কক্সবাজার ও বান্দরবন জেলাসমূহ এবং তৎসংলগ্ন অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস আছে। ফলে এই সময়ে এ অঞ্চলের নদীর পানির সমতল সময় বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে এবং কোথাও কোথাও আকস্মিক বন্যা সংঘটিত হতে পারে।

বিভিন্ন নদ-নদীতে পাউবোর পর্যবেক্ষণাধীন ১০১ পয়েন্টের মধ্যে সোমবার পানির সমতল বেড়েছে ৫৩টিতে। পানির সমতল কমেছে ৪৩টিতে। অপরিবর্তিত আছে ৪টি পয়েন্টের পানি। আর একটি পয়েন্টের তথ্য পাওয়া যায়নি।