সেন্ট লুসিয়ায় নির্বিঘ্নেই চলছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের প্রাথমিক ট্রেনিং ক্যাম্প। যেখানে প্রাথমিকভাবে ৩০জনকে ডাকা হয়েছিল অনুশীলনের জন্য। কিন্তু বিধি বাম। চলমান করোনা মহামারি থেকে রেহাই পেলো না ক্যারিবীয়দের অনুশীলন ক্যাম্প। যেখানে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ক্যারিবিয়ান পেসার মার্কুইনো মিন্ডলে। যার ফলে স্থগিত করে দেয়া হয়েছে অনুশীলন ক্যাম্প।

বেশ কযেক বছর পর ক্যারবীয় সফরে টেস্ট সিরিজ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই উদ্দেশ্যেই সেন্ট লুসিয়ায় ট্রেনিং শিবিরের আয়োজন করেছি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু করোনার কারণে শুরুতেই বড় ধাক্কা লাগলো জেসন হোল্ডারদের এই শিবিরে।

জ্যামাইকান ফাস্ট বোলারের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরেই তাকে নিজের হোটেল রুমে আইসোলেশনে পাঠানো হয়। সেন্ট লুসিয়া সরকারের নিয়ম অনুযায়ী যতক্ষণ না মিন্ডলের পরপর দু’টি টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসছে, তাকে আইসোলেশনেই কাটাতে হবে। এ অবস্থায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের ডাক্তাদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন এই তরুণ বোলার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ডের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘শুক্রবার ২১ মে, সেন্ট লুসিয়ায় লাল বলের দলের ট্রেনিং শিবিরের সঙ্গে যুক্ত দলের সব সদস্যের পিসিআর পদ্ধতিতে পরীক্ষা করা হয়। তাতে জ্যামাইকান ফাস্ট বোলার মারকুইনো মিন্ডলে নিজের দ্বিতীয় পরীক্ষায় পজিটিভ ধরা পড়েন।’

তবে দলের কোচিং স্টাফ ও বাকি সদস্যদের পুনরায় পরীক্ষা করা হলেও কারোর রিপোর্ট পজিটিভ আসেনি। এরপর সপ্তহান্তের ট্রেনিং শিবির বাতিল করা হলেও ২৪ মে থেকে ফের ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে ক্রিকেটাররা ট্রেনিং শুরু করবেন বলে জানানো হয় বোর্ডের পক্ষ থেকে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের পাশাপাশি প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে পাঁচটি টি-টোয়েন্টিও খেলবেন জেসন হোল্ডাররা।