“খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (খুকৃবি) শিক্ষক সমিতি” গঠনের লক্ষ্যে সকল সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দের উপস্থিতিতে দৌলতপুরের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের একাডেমিক ভবনে একটি সভা বুধবার সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে এনিম্যাল নিউট্রিশন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোঃ তসলিম হোসেন কে আহ্বায়ক এবং ফিজিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. এম এ হান্নান কে সদস্য-সচিব করে ১৫ (পনের) সদস্যের একটি আহ্বায়ক কমিটি ২০২১-২২ গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- ড. মো: আসাদুজ্জামান, ডাঃ মুঃ শহিদুল্লাহ, মোঃ আরিফ সাদিক পলাশ, নাহিদ হোসেন, মোঃ আরিফুর রহমান, সবুজ কান্তি নাথ, ফেরদৌস আরা হ্যাপি, ইসরাত খান, ড. মোঃ মেহেদী আলম, মোঃ জহুরুল ইসলাম, মোঃ আসাদুর রহমান, ড. নৌশিন জাহান এবং নিউটন চন্দ্র পাল। উক্ত আহ্বায়ক কমিটি আগামীতে শিক্ষক সমিতির পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী কমিটি গঠন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে।খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির আহবায়ক কমিটি নিম্নবর্ণিত মৌলিক লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যে গঠিত হয়। লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের মধ্যে রয়েছে-১) শিক্ষকবৃন্দের মধ্যে শিক্ষা ও গবেষণা, সাংস্কৃতিক এবং সামাজিক কার্যাবলির বিস্তৃতি ও উন্নয়ন সাধন, ২) শিক্ষকবৃন্দের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিতকরণ, ৩) বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষকবৃন্দের সম্মান ও স্বার্থ সুনিশ্চিত রাখা, ৪) বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সাথে সক্রিয় যোগাযোগ স্থাপন করা এবং অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাথে পারস্পারিক সুসম্পর্ক ও যোগাযোগ রক্ষা করে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণার উন্নয়নে কাজ করা ও ৫) সর্বোপরি শিক্ষকগণের সার্বিক কল্যান নিশ্চিতকরণে সচেষ্ট থাকা।
এছাড়া খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি খুকৃবির সার্বিক কল্যান ও উন্নয়নে গঠনমূলক অবদান রাখা, সার্বিক শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে সামাজিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক আন্দোলন গড়ে তোলা, বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠান উদযাপন এবং সামাজিক ও জনকল্যাণমূলক কাজে অংশগ্রহণ করবে।
পরিশেষে, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারী শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও বিশ্ব মানবতার কল্যাণ কামনা করে উক্ত সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।