বিশ্বে ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ইতোমধ্যেই বহু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। বিভিন্ন দেশে করোনার কারণে বিপর্যয় নেমে এসেছে।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ৮৫ লাখ ১৩ হাজার ২২৬। এর মধ্যে মারা গেছে ৩৪ লাখ ৯৯ হাজার ৪১৭ জন। তবে ইতোমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১৫ কোটি ১৭ হাজার ৬৪৮ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। চীনে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২২০টি দেশ ও অঞ্চলে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঘটেছে। তবে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুতে এখনও শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। এরপরেই রয়েছে ভারত, ব্রাজিল, ফ্রান্স, তুরস্ক, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি, জার্মানি এবং স্পেন।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৪৭ হাজার ১৮৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৫ হাজার ২০৮ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৭৬ লাখ ৬ হাজার ৪৪২ জন।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় থাকা ভারতে প্রায় এক মাস ধরে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা বিশ্বে সর্বোচ্চ। ভারতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৭১ লাখ ৫৬ হাজার ৩৮২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ১১ হাজার ৪২১ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৪৩ লাখ ৪৩ হাজার ২৯৯ জন।

এদিকে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ কোটি ৬১ লাখ ৯৫ হাজার ৯৮১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৫২ হাজার ২২৪ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৪৬ লাখ ৪৮ হাজার ৩৩২ জন।

ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ লাখ ৯ হাজার ৫০। এর মধ্যে মারা গেছে ১ লাখ ৮ হাজার ৮৭৯ জন। তবে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৫২ লাখ ৪৬ হাজার ২২৮ জন।

তুরস্কে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ লাখ ৩ হাজার ৩৮৫। এর মধ্যে মারা গেছে ৪৬ হাজার ৬২১ জন এবং সুস্থ হয়ে উঠেছে ৫০ লাখ ৪৫ হাজার ৫০৮ জন।

রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ লাখ ১৭ হাজার ৭৯৫। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছে ১ লাখ ১৯ হাজার ১৯৪ জন। ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪৬ লাখ ৩২ হাজার ৯৫৫।

অপরদিকে যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪ লাখ ৬৭ হাজার ৩১০। এর মধ্যে মারা গেছে ১ লাখ ২৭ হাজার ৭৩৯ জন এবং সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪৩ লাখ ৫ হাজার ৯৭১ জন। এছাড়া ইতালিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৯২। এর মধ্যে মারা গেছে ১ লাখ ২৫ হাজার ৫০১ জন। দেশটিতে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৩৮ লাখ ৪ হাজার ২৪৬ জন।