সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতে দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। যাদের হাত ধরে চির-আকাঙ্ক্ষিত সাফল্য এসেছে, পুরো দেশ উৎসবের আমেজে মেতেছে, সেই ফুটবলাররা বেতন পান নামমাত্র। মাসে কেউ ১২ হাজার, কেউ ১০ হাজার, আবার কেউ পান ৮ হাজার টাকা করে। স্বস্তির খবর হচ্ছে, তাদের বেতন বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সদস্যরা। সেখানেই নাকি বাফুফে-বস বেতন বাড়ানোর কথা বলেছেন। এ সম্পর্কে অধিনায়ক সাবিনা বলেন, ‘আমাদের তো চাওয়ার শেষ নেই। মূলত ফ্যাসিলিটিজ ও সম্মানীর বিষয়ে কথা বলেছি। সভাপতি স্যার আমাদের বিষয়টি বাস্তবায়ন করবেন বলে জানিয়েছেন।’

বাফুফে কত করে বেতন বাড়াবে নারী ফুটবলারদের? সাবিনার মতে, ‘আমরা একটা অঙ্ক বলেছি, ফেডারেশন সেটা দেখবে।’

প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে নারী ফুটবলারদের সঙ্গে আছেন গোলাম রব্বানী ছোটন। তিনি জানিয়েছেন, বেতন বাড়লে ভীষণ খুশিই হবেন। নিজের বাসায়ও সম্মান বাড়বে তার। ছোটনের মতে, ‘আমরা দিনের অধিকাংশ সময় ফুটবলই দিই। বাসায় মেহমান হিসেবেই থাকি। মাস শেষে আমাদের সম্মানী বাড়লে, বাসায় সম্মানও বাড়বে। সাবিনাদের সঙ্গে আমাদের বিষয়টিও সভাপতি মহোদয় বিবেচনা করবেন বলে জানিয়েছেন।’

ফাইনালে নেপালকে ৩-১ গোলে হারানোর পর সাফের ট্রফির পাশাপাশি ফেয়ার প্লে ট্রফিও জিতেছে বাংলাদেশ। পুরো টুর্নামেন্টে মাত্র এক গোল হজম করায় রূপনা হয়েছেন সেরা গোলরক্ষক। টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। দুটি হ্যাটট্রিকসহ সব মিলিয়ে ৮ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কারও পান তিনি।

পিএসএন/এমঅ‌াই