ভারতে করোনাভাইরাসে গত তিন দিন ধরে দৈনিক সংক্রমণ কমলেও মৃত্যু দিন দিন বেড়েই চলেছে। দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছিল মঙ্গলবার। সেই সংখ্যা ছাপিয়ে গেছে বুধবার (১৯ মে)। সেই সঙ্গে এই প্রথম একদিনে সাড়ে চার হাজারের বেশি মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে।

আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৬৭ হাজার ৩৩৪ জন। গতকালের তুলনায় চার হাজার বেশি। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই কোটি ৫৪ লাখেরও বেশি। একই সময়ে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন চার হাজার ৫২৯ জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ ৮৩ হাজার ২৪৮ জনের।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ লাখেরও বেশি করোনা টেস্ট করা হয়। একদিনে টেস্টের দিক থেকে এটা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। পাশাপাশি নতুন আক্রান্ত কম হওয়ায় দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা গত কয়েকদিন ধরেই কমতে শুরু করেছে। ভারতে এখন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩২ লাখ ২৬ হাজার ৭১৯ জন, যা কয়েকদিন আগেও ছিল ৩৭ লাখেরও বেশি।

চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশটিতে করোনার গণটিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়। এখন পর্যন্ত দেশটিতে টিকা নিয়েছেন সাড়ে ১৮ কোটিরও বেশি মানুষ। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দেশটির টিকাকরণ কর্মসূচিতে শ্লথ গতি দেখা গেছে বলে অভিযোগ বিভিন্ন মহলের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া পরিসংখ্যানেও সেই তথ্য উঠে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে টিকা নিয়েছেন ১৩ লাখ ৫৬ হাজার ১৫৩ জন।