ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা গতকালের চেয়ে বাড়লেও কমেছে মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজারেরও কম মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে। এছাড়া একদিনে আক্রান্ত হয়েছে ৪৫ হাজারের বেশি মানুষ, যা গতকালের চেয়ে আট হাজার বেশি।

বুধবার (৩০ জুন) দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এই খবর দিয়েছে এনডিটিভি।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ৮১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মহামারিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৯৮ হাজার ৪৫৪ জনে।

একই সময়ে ১৯ লাখ ৬০ হাজার ৭৫৭টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৪৫ হাজার ৯৫১ জন। গতকাল (২৯ জুন) আক্রান্ত হয়েছিল ৩৭ হাজার ৫৬৬ জন। এ নিয়ে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন কোটি তিন লাখ ৬২ হাজার ৮৪৮ জন।

ভারতে সংক্রমণ একটু বাড়লেও নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে সংক্রমণের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের হার আড়াই শতাংশেরও কম। মহামারি শুরুর পর থেকে সংক্রমণের হার দুই দশমিক ৬৯ শতাংশ। এছাড়াও দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন পাঁচ লাখ ৩৭ হাজার ৬৪ জন।

ভারতে সুস্থতার হারও বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০ হাজারেরও বেশি মানুষ এই ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছে। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৯২ শতাংশ।

দেশটির কয়েকটি প্রদেশে ব্যাপকভাবে সংক্রমণশীল ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের নতুন ধরন ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, পাঞ্জাব, গুজরাট, কেরালা, অন্ধপ্রদেশ, তামিল নাড়ু, উড়িষ্যা, রাজস্থান এবং জম্মু-কাশ্মীরে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।