কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) বেলা ১২টার দিকে উখিয়ার ট্রানজিট ক্যাম্প-৭ এর পুলিশ বক্সের পাশে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুর রহমান জানান, আগুনে ক্যাম্প-৭ এর পুলিশ বক্স সংলগ্ন ফ্রেন্ডশীপ হাসপাতালের আংশিক পুড়ে যায় এবং ৭-৮টি দোকান ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

ক্যাম্পে দায়িত্বরত ১৪ এপিবিএন পুলিশের অধিনায়ক (পুলিশ সুপার) নাঈমুল হক জানান, শুক্রবার সংঘঠিত অগ্নিকাণ্ডে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-০৭ এর ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতাল সংলগ্ন চেকপোস্টের সন্নিকটের কাটাতারের বাহিরে উখিয়া-টেকনাফ সড়কের পশ্চিম পাশে পাকা রাস্তা সংলগ্ন ৭/৮ টি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বর্তমানে আগুন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস টিম কাজ করছে। আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে এখনো কোন তথ্য পাওয়া যায়নি এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নিরুপন করা সম্ভব হয়নি।
এর আগে গত ৯ জানুয়ারী উখিয়ার শফিউল্লাহ কাটা ১৬নং ক্যাম্পে এ অগ্নিকাণ্ডে ৬’শ ঘর পুড়ে যায়। একই ভাবে গত ২ জানুয়ারি উখিয়ার ২০ এক্সটেনশন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একটি করোনা আইসোলেশন সেন্টারে আগুন লাগে। সেই ঘটনায় হতাহত না হলেও পুড়ে যায় ৭০ শর্য্যার হাসপাতাল।

এরও পূর্বে গত বছরের ২২ মার্চ উখিয়ার তিনটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্মরণকালের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। যে ঘটনায় প্রায় দশ হাজারের বেশি ঘর পুড়ে যায়, ক্ষতিগ্রস্ত হয় দুই লক্ষাধিক রোহিঙ্গা এবং ১১ জনের প্রাণহানি ঘটে।

পি এস/এন আই