সরকার সমালোচক এক সাংবাদিককে আটক করতে গ্রিস থেকে লিথুয়ানিয়াগামী একটি ফ্লাইটকে নিজ দেশে ঘুরিয়ে নিয়েছে বেলারুশ। প্লেনে বোমা থাকার অভিযোগ এনে সেটিকে বেলারুশের রাজধানী মিনস্কে ঘুরিয়ে নেয়া হয়। যদিও পরে সেখানে কোনো ধরনের বোমা বা বিস্ফোরক পাওয়া যায়নি।

বেলারুশের নেক্সটা মিডিয়া নেটওয়ার্ক বলেছে, ওই ফ্লাইটটিতে তাদের সাবেক সম্পাদক রামান প্রোতাসেভিচ ছিলেন। তাকে আটক করেছে বেলারুশ প্রশাসন। নেক্সটা মিডিয়া নেটওয়ার্ক বেলারুশ সরকারের বড় সমালোচক হিসেবে পরিচিত

২৬ বছর বয়সী সাংবাদিক রোমান প্রোতাসেভিচের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ এনেছিল বেলারুশ সরকার। এরপর ২০১৯ সালে দেশ ছাড়েন তিনি। দেশের বাইরে থেকেই নানা সময় তিনি সরকারের সমালোচনা করতেন।

সমালোচনা ও বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমের জেরে বেলারুশ কর্তৃপক্ষ প্রোতাসেভিচকে ‘সন্ত্রাসী’ ঘোষণা করেছে। দেশে তার মৃত্যুদণ্ড হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিরোধীদলীয় নেতা সভেতলানা টিকানোভস্কিয়া। একই সঙ্গে তিনি সাংবাদিক প্রোতাসেভিচের মুক্তি দাবি করেছেন।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের কয়েকটি দেশ। তারা বেলারুশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছে। একই সঙ্গে এ ঘটনায় ইইউ ও ন্যাটোর হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়েছে।

১৯৯৪ সাল থেকে বেলারুশ শাসন করছেন ৬৬ বছর বয়সী আলেক্সান্দার লুকাশেঙ্কো। তিনি গত বছরের আগস্টে বিতর্কিত এক নির্বাচনে নিজেকে বিপুল ব্যবধানে বিজয়ী বলে দাবি করেন।

বিরোধীরা বলছেন, গত নির্বাচনে ব্যাপক কারচুরি হয়েছে। সোভিয়েত ইউনিয়ন পতনের পর থেকেই দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে রয়েছেন লুকাশেঙ্কো।