আগামী ১০ মের মধ্যে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের জন্য মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর বিজয় নগরের শ্রম ভবনের সম্মেলনকক্ষে ত্রিপক্ষীয় পরামর্শ কমিটি টিসিসি কমিটির ৬৭তম সভা ও আরএমজি টিসিসি কমিটির ৮ম সভায় সভাপতির বক্তব্যে মালিকদের প্রতি এ আহ্বান জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী ১০ মের মধ্যে গার্মেন্টসসহ সব সেক্টরের শ্রমিকদের ঈদুল ফিতরের বোনাস ও এপ্রিল মাসসহ যদি কোনো মাসের বেতন বকেয়া থাকে সব পরিশোধ করতে হবে।

মালিক ও শ্রমিক নেতাদের পক্ষ থেকে করোনা টিকা দিতে শ্রমিকদের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নেওয়ার দারির পরিপ্রেক্ষিতে মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, তিনি শ্রমিকদের টিকা দিতে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি পাঠাবেন। দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের স্বার্থে করোনা মহামারির এ দুর্যোগকালীন শ্রমিকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কলকারখানার উৎপাদন অব্যাহত রেখেছেন।

যদি কোনো কারখানার শ্রমিকদের মার্চ মাসের বেতন বকেয়া থাকলে সেগুলো ঈদের আগেই দেওয়া ও সুবিধামতো জোনভিত্তিক ছুটির ব্যবস্থা করতে মালিকদের পরামর্শ দেন প্রতিমন্ত্রী।

মন্নুজান সুফিয়ান শ্রমিকদের কঠোর স্বাস্থ্যবিধি পালনের আহ্বান জানিয়ে বলেন, ব্যক্তি পর্যায়ে সচেতনতায় আপনি আমি সবাই নিরাপদ থাকতে পারবো। সবার সহযোগিতায় করোনা মোকাবিলা করে দেশকে এগিয়ে নিতে পারবো।

টিসিসি সভায় মন্ত্রণালয়ের সচিব কে এম আবদুস সালাম, অতিরিক্ত সচিব ড. রেজাউল হক, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জয়নুল আবেদীন,  কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ, শ্রম অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক মো. আব্দুল লতিফ খান, শিল্প পুলিশের ডিআইজি মো. মাহবুবুর রহমান, বিজিএমইএ-এর সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম মান্নান কচি, সহ-সভাপতি খন্দকার রফিকুল ইসলাম, নাছির উদ্দীন, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নুর কুতুব আলম মান্নান, আইবিসির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শ্রমিক নেতা সালাউদ্দীন স্বপন, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম রনি ও আইএলও প্রতিনিধি, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করেন।